ঢাকা১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গাইবান্ধার ভেড়ামারা ব্রীজে জলকেলিতে তরুন -তরুনীদের সমাগম

বার্তা বিভাগ
এপ্রিল ২৯, ২০২৪ ৬:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আনোয়ার হোসেন, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ অবিরামধারায় প্রবাহমান নির্মল পানির স্রোত, নিচে পড়ে থাকা ছোট ছোট পাথর খন্ড সবার মনে ভাব-আবেগের যেন এক তরঙ্গজোয়ার সৃষ্টি করেছে। প্রাকৃতিক এই সৌন্দর্য উপভোগ করতে গাইবান্ধার ভেড়ামারা ব্রীজে জলকেলিতে মেতে উঠেছে তরুন -তরুনীরা।

সাদা পাথরের মাঝে প্রবাহমান শীতল স্বচ্ছ জলরাশি। নদীর নীচ থেকে উপরে তাকালে দুই তীরকে দেখে মনে হবে যেন পাহাড়ের মধ্যে বহমান একটি ছোট নদী। প্রকৃতির এমন নয়নাভিরাম দৃশ্যের সম্প্রতি দেখা মিলেছে গাইবান্ধা শহর থেকে দুই কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত খোলাহাটি ইউনিয়নের ভেড়ামারা ব্রীজের নিচে ঘাঘট নদীতে । ভেড়ামারা রেলওয়ে ব্রীজের পাশেই গত কয়েক মাস আগে একটা পাকা সেতু নির্মাণ করা হয়। এখানে পাশাপাশি অবস্থিত দুটি সেতুকে ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা করতে প্রকৌশলীরা এখানে ছোট- বড় আকারের পাথর নদীতে ফেলেন। বর্তমানে নদীর পানি অনেকটা শুকিয়ে যাওয়ায় পাথরগুলো দৃশ্যমান হয়ে সিলেটের জাফলংয়ের সাদৃশ্য একটি আবহ তৈরি হয়েছে।

প্রায় প্রতিদিনই কয়েকশত দর্শনার্থী প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে ছুটে আসছে। সে সাথে এদিকে বৈশাখের তীব্র তাপদাহে নদীর শান্ত , শীতল জলের ছোঁয়া নিতে এখানে এসে স্নান উৎসবে মেতে উঠেছে তরুণ তরুণী থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ। ব্রিজের নিচে ঘাঘট নদীর স্বচ্ছ শীতল জ্বলে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র সিলেট এর জাফলং এর ন্যায় সমুদ্র সৈকতের সাদা পাথর দৃশ্যমান হওয়ায় এখানে এক অপরুপ পরিবেশ গড়ে ওঠা সহ পর্যটক স্থান রুপ নিয়েছে গাইবান্ধার ভ্রমনপিপাসুদের কাছে। এই স্থান নিয়ে কৌতুহলের শেষ নেই ভ্রমনপিপাসু সহ বিভিন্ন শিশু, তরুনসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষের। কেউ এই স্থানটিকে নাম দিয়েছেন মিনি জাফলং, কেউ বা রোমান্টিক জাফলং।

এই দৃশ্যটি দেখে আনন্দিত তরুন থেকে শুরু করে গাইবান্ধার বিভিন্ন বয়সী মানুষ। একদিকে তীব্র গরমে মানুষের হাসফাস অবস্থা। এই অবস্থা থেকে মানুষিক প্রশান্তির খোঁজে গোসল করাসহ জলকেলির পাশাপাশি সেলফি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে আগত দর্শণার্থীরা।

এখানে গোসল করতে আসা সদ্য এইচএসসি পাশ শিক্ষার্থী আবু খায়ের বলেন, আমরা সিলেটের জাফলং -এ যেতে পারছিনা। এই স্থানটি দেখতে সিলেটের জাফলং এর মতো। তাই আমরা কয়েক বন্ধুসহ এখানে গোসল এর মাধ্যমে আনন্দ উপভোগ করতে এসেছি। এখানে সকাল থেকে শুরু হয়ে সন্ধ্যার আগ মুহুর্ত পর্যন্ত গোসল ও মানুষের উপস্থিতি দেখা যায়।

এইচ এসসি পরীক্ষার্থী গাইবান্ধা শহরের খানকাহশরীফ এলাকার সোহাগ জানায়, গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। গরম থেকে বাঁচতে শরীরকে ঠান্ডা করতে এখানে গোসল করতে এসেছি। তাছাড়া এই দৃশ্যটা সিলেটের জাফলং এর মত। আমাদের অনেকের সিলেটে যাওয়া সম্ভব হয় না। সিলেটে যাবার সাধ থাকলেও সাধ্য নেই তাই যাওয়া হয় না। এ স্থানটি একটি সুন্দর মনোরম পরিবেশের।

এ বিষয়ে সদরের ৯ নং খোলাহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মাসুম হক্কানী’র সাথে মুঠো ফোনে কথা হলে তিনি জানান, ভেড়ামারা ব্রীজ এর নিচে মিনি জাফলং সৃষ্টি হওয়ায় এটা একটি বিনোদনকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। এখানে প্রতিদিনই মানুষ মোবাইল ও ল্যাপটপ নিয়ে গোসল করতে ও ঘুরতে আসে। তাদের জানমালের নিরাপত্তার জন্য আমি আনসার সদস্য ও মেম্বারদের নির্দেশনা দিয়েছি। তারা প্রতিদিন নজড়দারি রাখে। সরকার উদ্যোগ নিলে এ স্থানটি একটি মিনি পর্যটন স্পট হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে হয়। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। যোগাযোগ: হটলাইন: +8801602122404 ,  +8801746765793 (Whatsapp), ই-মেইল: [email protected]