ঢাকা২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নিজের অনুষ্ঠান শেষ পর্যন্ত করতে পেরেছি, কৃতজ্ঞ

বার্তা বিভাগ
জুলাই ২০, ২০২৩ ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

১৫ জুলাই, আমি একটি মাহেন্দ্রক্ষণের সম্মুখীন হয়েছিলাম। এই প্রথম আমার বঙ্গবন্ধুর অ্যালবাম পাবলিকের সামনে উম্মোচিত হলো।বঙ্গবন্ধুর প্রয়াণ দিবসের ৫ দশক স্মারক গ্রন্থ এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই অনুষ্ঠান সার্থক করার জন্য সবার কাছে কৃতজ্ঞ।

আমার দুই মেয়ে তারা আন্তরিক প্রচেষ্টায় অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত করার জন্য চেষ্টা করেছে। বড় মেয়েকে অসংখ্য ধন্যবাদ। সে এত চমৎকারভাবে উপস্থাপন করেছে।

আশা করি সে আগামীতে আরো অনেক সুন্দর উপস্থাপন করতে পারবে। যদিও সে ইংলিশে বেশি পারদর্শী, ইংলিশে হলে হয়তো আরও সাবলীলভাবে উপস্থাপন করতো।

আমার পরিবার একটি ইনস্টিটিউট। এই ইনস্টিটিউট সঠিকভাবে গড়ে তোলা এবং দেশ নেতৃত্বে বড় একটা ভূমিকা রাখবে বলে আমি অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমার পরিবারের সদস্য গুলো যদি আমার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত না থাকতো সকল কাজে সহযোগিতা না করতো আমি হয়তো একপাও আগাতে পারতাম না।

যদিও বন্ধুবর অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিল, তাঁর অফিসিয়াল কাজের ব্যস্ততার কারণে, সে কারণে আমার একটু মন খারাপ ছিল।

বগুড়া থেকে আগত যারা বিজয়ী তাদেরকে সাধুবাদ জানাই । তারা দূর থেকে এসে এত সুন্দর ভাবে তাদের উপস্থাপন এবং পুরস্কার গ্রহন করেছে।

কিন্তু একটা বিষয় আমি একটু স্পষ্ট বুঝতে পেরেছি এ ধরনের অনুষ্ঠানগুলোতে বন্ধুবান্ধব আত্মীয়-স্বজনের সমাগম কম হয়। যদি এটা ভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান হতো তাহলে হতো জায়গা দেওয়া যেত না।তারপরেও আমার একটু আশা ছিল আমি ভেবেছিলাম বন্ধুরা আমার এই অনুষ্ঠানে আসবে। আমার এই অনুষ্ঠানে আমার কোন মেয়ে বান্ধবীকে দেখলাম না। আমাকে উৎসাহিত করার জন্য পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। কয়েক জন তিরাশিয়ান বন্ধুরা এসেছিল।

একজনের কথা না বললেই নয় তিনি হলেন হাসিদা মুন আপা। আমার বড় বোন তাকে আমি শ্রদ্ধা করি ।সেটা সে আজকে আবারো প্রমাণ করে দিয়েছে ।

কম বেশি সবাই এসেছিল সবচেয়ে বেশি কৃতজ্ঞ সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী এবং সচিব মহোদয়ের কাছে। তাদের সহযোগিতায় আমি এই জাদুঘরটা বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পেরেছি। আমি কতটুকু তাদেরকে দিতে পেরেছি জানিনা। সবকিছু মিলিয়ে অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত ছিল। যা কিছু ভুল হয়েছে সবই আমার। সবাইকে নিয়ে এই আয়োজনে সংযুক্ত হতে পেরে আমি নিজেকে গর্ববোধ করছি। যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে আবারো মার্জনীয়।

-নন্দিনী লুইজা
(শিক্ষক,লেখক,গবেষক ও প্রকাশক)
বর্ণ প্রকাশ লিমিটেড।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে হয়। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। যোগাযোগ: হটলাইন: +8801602122404 ,  +8801746765793 (Whatsapp), ই-মেইল: [email protected]