ঢাকা২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বেনাপোলে স্থল বন্দর এলাকায় বোমা বিস্ফোরণ, ৪টি হাত বোমা ও ৪টি ককটেল উদ্ধার, আটক ১

বার্তা বিভাগ
জুন ৮, ২০২৩ ১১:১২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মো. রায়হান সিদ্দিকী ,উপজেলা প্রতিনিধি :

বেনাপোলে নিউ আলিফ ট্রান্সপোর্ট এজেন্সি নামক একটি দোকান ঘরে শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে বেনাপোল ছোট আঁচড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে ওই অফিসের একটি দেয়াল ধসে পড়েছে। অফিসের অন্যান্য দেয়ালের অনেক জায়গায় ফেটে গেছে।

এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে ৪টি শক্তিশালী তাজা ককটেল ও ৪টি হাত বোমা সহ লিটন (২৮) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বেনাপোল ছোট আঁচড়া মোড়ে আসামী লিটনের ভাড়া করা ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির ওই ঘরে বোমা বিস্ফোরণ হলে এর পরপরই তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৪টি তাজা ককটেল ও ৪টি হাত বোমা সহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। আসামী লিটন বেনাপোল বৃত্তিআঁচড়া গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, আবাসিক এলাকার ভেতর একটি দোকানঘর ভাড়া নিয়ে ভারতীয় মাছের ট্রাকে থাকা ককসিটের ব্যবসা করতো স্থানীয় বৃত্তিআঁচড়া গ্রামের পিচ্চি লিটন ওরফে সোলা লিটন। পাশাপাশি সে আলিফ ট্রান্সপোর্ট নামক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ট্রাক ও ট্রেইলারের ভাড়া ব্যবসা করতো। অফিসের মালিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী হাবিবুর রহমান। ঘটনার পর থেকে পিচ্চি লিটন পালিয়ে যায়।

তারা বলেন, ট্রাক ও ট্রেইলারের বন্দবস্ত নিয়ে অন্যান্য ট্রান্সপোর্ট কোম্পানির সঙ্গে পিচ্চি লিটনের বিরোধ ছিল। এ ছাড়া ভারত থেকে আমদানিকৃত মাছের ট্রাকে কর্কসিট এবং তুষের সিন্ডিকেট ব্যবসা ছিল লিটনের। লিটন ছিল সিন্ডিকেটের হোতা। তাছাড়াও আধিপত্য বজায় রাখতে লিটন অফিসে বোমা রাখতে পারে।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। বোমা বিস্ফোরণে ওই ঘরের পাশের দোকানও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এঘটনায় অভিযুক্ত লিটন নামে একজনকে ৪টি হাত বোমা ও ৪টি তাজা ককটেল সহ আটক করা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে হয়। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। যোগাযোগ: হটলাইন: +8801602122404 ,  +8801746765793 (Whatsapp), ই-মেইল: [email protected]