ঢাকা২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অনেক প্রতীক্ষার প্রহর শেষে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা

বার্তা বিভাগ
মার্চ ২৬, ২০২৩ ৩:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বঙ্গবন্ধুর ফটো সংগ্রহ করে সেটাকে একটি অ্যালবামে লিপিবদ্ধ করার প্রক্রিয়ায় নব নির্বাচিত মহামান্য রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন আহমেদ চুপ্পুর সাথে আমার পরিচয় ঘটে। তখন জানতে পারি তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা, বঙ্গবন্ধু সহযোগী এবং আমরা একই এলাকার পাবনার মানুষ।

তখনই আমি তাঁর সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ছবি সংগ্রহ করে অ্যালবামে সংযুক্ত করি। আমার অ্যালবামে তাঁর নাম পূর্ব থেকেই সংযুক্ত আছে। নব নির্বাচিত মহামান্য রাষ্ট্রপতি আমার পূর্ব পরিচিত। আমি তাঁকে চাচা বলে ডাকি।

নব নির্বাচিত মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে অভিনন্দন‌ ও শুভেচ্ছা জানানোর জন্য আমরা ২৫/০৩/২০২৩ গিয়েছিলাম। সৃষ্টিকর্তা যে কাজকর্ম তাঁর বান্দার জন্য যখন করা পছন্দ করেন প্রকৃতিতে তাই ঘটবে, আমরা মানুষ তা বুঝতে পারিনা।

জনাব মহামান্য রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন যখন রাষ্ট্রপতি হয়েছেন আমরা উত্তরবঙ্গ তথা পাবনাবাসীরা ভীষণভাবে আনন্দিত, উদ্বেলিত এবং আশাবাদী। তিনি দেশ গড়ার ক্ষেত্রে একটা বড় ভূমিকা রাখবেন। শুধু তাই নয় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে তাঁর একটি বিশেষ ভূমিকা থাকবে। কেননা তিনি বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সরাসরি সংযুক্ত ছিলেন। তাঁর ভালোবাসা আর অন্য ব্যক্তির ভালবাসার মধ্যে পার্থক্য অবশ্যই আছে।

তাই উনার কাছে দেশবাসীর প্রত্যাশা অনেক বেশি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্য ব্যক্তিকে নির্বাচিত করেছেন। কেননা বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সরাসরি রাজনীতি সঙ্গে যুক্ত, স্বাধীনতা যুদ্ধের সঙ্গে যুক্ত, এমন একজন ব্যক্তিকে রাষ্ট্রপতি করা হয়েছে আমরা সাধারণ জনগণ ভাগ্যবান। আমরা আশা করব নবনির্বাচিত রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া সোনার বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে যাদুকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করে আগামী প্রজন্মকে সঠিক দিক নির্দেশনা দেবেন।

তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর সবাই তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছে এটাই হওয়ার কথা। এলাকাবাসী, দলের নেতাকর্মী,অনেক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা-কর্মচারী তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন, অভিনন্দন জানাচ্ছেন ।

আমি ক্ষুদ্র একটি মানুষ , হাজারও মানুষের অভিনন্দনে হারিয়ে যেতে পারি তাই অপেক্ষা করছিলাম। অপেক্ষার প্রহর শেষ হয়েছে। মহামান্য রাষ্ট্রপতি আমাকে সময় দিয়েছেন ,আমি তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ। আমি, আমার দুই মেয়ে অঙ্গনা,অরণ্য এবং আমার সাংবাদিক বন্ধু আসাদকে নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেছি।

সবচেয়ে ভালো লেগেছে আমার মেয়ের আঁকা প্রট্রিটটি তিনি খুব পছন্দ করেছেন। এটাই আমার মেয়ের আশীর্বাদ।

আমরা চাই আগামী প্রজন্ম এ দেশটাকে সুন্দর করে গড়বে। আমরা তাদের পথপ্রদর্শক হয়ে থাকবো বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হয়ে দেশটার প্রতি আমাদের যে দায়বদ্ধতা রয়েছে তা সঠিকভাবে পালন করার জন্য আমরা সব সময় অঙ্গীকারবদ্ধ এবং দ্বায়বদ্ধ।

২৬/০৩/২০২৩
নন্দিনী লুইজা
শিক্ষক, লেখক, গবেষক ও প্রাবন্ধিক
চেয়ারম্যান ,বর্ণ প্রকাশ লিমিটেড

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে হয়। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বে-আইনি। যোগাযোগ: হটলাইন: +8801602122404 ,  +8801746765793 (Whatsapp), ই-মেইল: [email protected]